যারা তওবা করে ও পবিত্র থাকে, নিশ্চয়ই আল্লাহ তাদের ভালবাসেন। – ২:২২২

হে নবী! বলো, তোমরা যদি আল্লাহকে ভালবাসো, তবে আমাকে অনুসরণ করো। আল্লাহ তোমাদের ভালবাসবেন এবং তোমাদের অপরাধ ক্ষমা করবেন। আল্লাহ অতীব ক্ষমাশীল, পরমদয়ালু। –৩:৩১

নিশ্চয়ই যে ওয়াদা পালন করে এবং আল্লাহ-সচেতনতার পথে চলে, আল্লাহ তাকে ভালবাসেন। – ৩:৭৬

নিশ্চয়ই যে ওয়াদা পালন করে এবং আল্লাহ-সচেতনতার পথে চলে, আল্লাহ তাকে ভালবাসেন। – ৩:৭৭

আল্লাহ অবশ্যই ধৈর্যশীল সংগ্রামীদের ভালবাসেন। – ৩:১৪৬

নিশ্চয়ই আল্লাহ সৎকর্মশীলদের ভালবাসেন। – ৩:১৪৮

আল্লাহ তাঁর ওপর ভরসাকারীদের ভালবাসেন। – ৩:১৫৯

নিশ্চয়ই আল্লাহ সদাচারীদের ভালবাসেন। – ৫:১৩

নিশ্চয়ই আল্লাহ-সচেতন মানুষকেই আল্লাহ পছন্দ করেন। – ৯:৩

নিশ্চয়ই আল্লাহ-সচেতন মানুষকে আল্লাহ ভালবাসেন। – ৯:৭

মনে রেখো, আল্লাহ সুবিচারকারীদের ভালোবাসেন। – ৪৯.৯

আল্লাহ সুবিচারকারীদের ভালবাসেন। – ৬০:৮

যারা সারিবদ্ধভাবে সুদৃঢ় প্রাচীরের মতো একাত্ম হয়ে আল্লাহর পথে লড়াই করে, আল্লাহ তাদের ভালবাসেন। – ৬১:৪


এটি এক চলমান প্রশ্নোত্তর। কুরআনে আরো অনেক যায়গায় আল্লাহপাক কুরআন কেন নাযিল করেছেন তা এসেছে। এই প্রশ্নের উত্তর ধীরে ধীরে সমৃদ্ধ করা হবে।

সর্বশেষ আপডেট: ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২০



Print Friendly, PDF & Email

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।